রবিবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



এরশাদের সফর ঘিরে সুনামগঞ্জের রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা
বিশেষ প্রতিবেদক

বিশেষ প্রতিবেদক



বিজ্ঞাপন

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সুনামগঞ্জে আসছেন রোববার। পার্টির চেয়ারম্যানের সফর উপলক্ষে তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। গত কয়েকদিন ধরেই বিভিন্ন উপজেলাসহ সুনামগঞ্জ শহরে চলছে ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা। জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে যোগ দিতে এরশাদের এই সফর বলে জানিয়েছেন নেতাকর্মীরা।

তবে আনুষ্ঠানিকভাবে সম্মেলনের কথা থাকলেও মূলত আগামী সংসদ নির্বাচনকে নিয়ে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখবেন তিনি। শেষ পর্যন্ত এই সভা সমাবেশ একটি নির্বাচনী সমাবেশে পরিণত হবে। জনগণের উত্তাল ঢেউ দেখে শেষ পর্যন্ত এরশাদ কোন বক্তব্য ঘোষণা দেবেন সেটা ওই সমাবেশ না হওয়া পর্যন্ত কেউ বলতে পারছেন না। এর আগে এরশাদ একাধিকবার এই শহরে এসেছেন। কিন্তু এবারের মত অনুষ্ঠিতব্য বিশাল সমাবেশ এর আয়োজন অতীতে হয়নি।

জেলার অন্যান্য উপজেলা থেকে কতজন নেতাকর্মী আসবে সে পরিসংখ্যানে না গিয়ে নির্বাচনী এলাকার সকল নেতাকর্মী সমর্থকদেরকে যথাস্থানে সমবেত করার জন্য প্রাণান্তকর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। অনুকূল আবহাওয়া বিরাজ করলে শেষ পর্যন্ত এ সমাবেশটি বিশাল একটা জনসমুদ্রে পরিণত হবে সে লক্ষণই পরিলক্ষিত হচ্ছে।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে সরকারী কর্মকর্তা, জেলা প্রশাসন ও মহাজোটভূক্ত শরীক দলগুলোও এরশাদের এই সফরে স্ব স্ব দায়িত্ব পালন করবে। দলীয় সূত্রে জানা যায়, জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারযোগে সুনামগঞ্জের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। সকাল ১১টা ১০মিনিটে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনস হেলিপ্যাডে তাকে বহনকারী হেলিকপ্টার অবতরণ করবে। ১১টা ৩০মিনিটে এরশাদ জেলা জাপা’র আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ এমপি’র হাসননগরস্থ বাসভবনে অবস্থান করবেন। দুপুর ১২টায় শহরের সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা জাপা’র সম্মেলনে যোগ দেবেন।

সম্মেলন শেষে দুপুর ১টায় মধ্যাহ্ন ভোজের পর তার সুনামগঞ্জ ত্যাগের কথা রয়েছে। সম্মেলনে আগত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখবেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। দীর্ঘদিন পর জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন ঘিরে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে। সম্মেলন সফল করতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের দায়িত্বশীল নেতাকর্মীরা ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছেন। গত কয়েকদিন ধরেই জেলার ৫টি সংসদীয় আসনে জাপা’র মনোনয়ন প্রত্যাশীরা সর্বত্র ব্যানার-ফ্যাস্টুন ও পোস্টার লাগিয়ে নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় ব্যাপক প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করেছেন।

আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা বলেন, মহাজোট নেতা এরশাদের সফরে সুনামগঞ্জের রাজনৈতিক অঙ্গনে তোলপাড় শুরু হয়েছে। জাতীয় পার্টির সম্মেলনে তিনি আসলেও আমাদের আগ্রহ এরশাদ সাহেব সুনামগঞ্জ সদর আসনটি কি আমাদেরকে দান করবেন নাকি এটি জাতীয় পার্টির বর্তমান এমপির জন্যই রেখে দেবেন সে ব্যাপারে জানার আগ্রহ আমাদের রয়েছে। তাই এই সফরটিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে আমলে নিচ্ছে আওয়ামী লীগ। শেষ পর্যন্ত এই সফর কতটুকু ফলপ্রসু হয় সেদিকে এখন সকলের দৃষ্টি।