রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



                    চাইলে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন

বানভাসি মানুষের পাশাপাশি গবাদিপশুর জন্য খাদ্য নিয়ে গেলেন তারা



বিজ্ঞাপন

এ.জে লাভলু:: মৌলভীবাজারের বড়লেখায় বানভাসি মানুষের পাশে মানুষ দাঁড়াচ্ছে। তাদের জন্য সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যক্তি-সংগঠন খাদ্য নিয়ে ছুটে যাচ্ছে। তবে বন্যা কবলিত এলাকায় গবাদিপশুর খাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। অবলা এই প্রাণীগুলোর কথা কেউ ভাবেনি। ওদের জন্য কেউ খাদ্য নিয়ে ছুটে যায়নি। বিষয়টি নিয়ে গত ২৫ জুন লাতুসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে একটি সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সংবাদটি কাঠালতলী সমাজ কল্যাণ পরিষদের সদস্যদের দৃষ্টিগোচর হয়। বিষয়টি তাদের নাড়া দেয়। এরপর তারা বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের পাশাপাশি গবাদিপশুদের জন্য খাদ্য বিতরণের উদ্যোগ নেন।

গত বুধবার (০৩ জুলাই) বন্যা কবলিত এলাকার অর্ধশত গবাদিপশুকে গোখাদ্য দিয়েছে সংগঠনটি। পাশাপাশি ৫’শ মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার ও প্রয়োজনীয় ঔষুধ বিতরণ করেন তারা। এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সংগঠনের সদস্যরা জানিয়েছেন।

জানা গেছে, সাম্প্রতিক ভারী বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বড়লেখা উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। তলিয়ে গেছে বাড়িঘর, রাস্তাঘাট ও ফসলের মাঠ। এতে লাখো মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। গত কয়েকদিনে বন্যা পরিস্থিতি আবারও অবনতি হয়েছে। এতে মানুষের পাশাপাশি চরম বিপাকে পড়েছে গবাদিপশু। কারণ বন্যায় বিস্তীর্ণ এলাকার চারণভূমি তলিয়ে গেছে। এই অবস্থায় গোখাদ্যের চরম সংকট দেখা দিয়েছে। খাদ্যের অভাবে অনেক গবাদি পশু অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় অনেকে কম দামে গবাদিপশু বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন। বন্যা কবলিত সুজানগর, তালিমপুর, বর্ণি ও দাসেরবাজার ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ‘বড়লেখায় গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে বন্যাকবলিত এলাকার মানুষ’ শিরোনামে গত ২৫ জুন লাতুসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে একটি সচিত্র সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি কাঠালতলী সমাজ কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান লন্ডনপ্রবাসী দেলওয়ার হোসেন চৌধুরী ইমন ও সভাপতি আব্দুল্লাহ আল সাজুর দৃষ্টিগোচর হয়। এরপর তারা বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের মাঝে খাদ্য বিতরেণের পাশাপাশি গবাদিপশুদের জন্য গোখাদ্য বিতরণের উদ্যোগ নেন।

বুধবার (০৩ জুলাই) দুপুরে পরিষদের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল সাজু ও সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমদের নেতৃত্বে বন্যা কবলিত তালিমপুর ইউনিয়নে হাকালুকি উচ্চ বিদ্যালয়, হাল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও খুটাউরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নেওয়া গবাদিপশুর মালিকদের মাঝে ঘাস ও দানাদার খাবার বিতরণ করেন। পাশাপাশি ওই তিনটি আশ্রয় কেন্দ্রের ৫’শ মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার ও প্রয়োজনীয় ঔষুধ বিতরণ করা হয়। এসময় পরষিদের সদস্যদের সহযোগিতা করেন তালিমপুর ইউপির ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য এনামুল হক এনাম এবং স্থানীয় সমাজকর্মী সাইদ আহমদ।

এসময় পরিষদে সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাওসার আহমদ রনি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হামিদ হোসেন আজাদ, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক জাবের আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রায়হান চৌধুরী, ক্রীড়া সম্পাদক জাহান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরান হোসেন, মারওয়ান হোসেন, সহ ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল আজিজ ইমরান, সদস্য আইনুল ইসলাম, আরিফ আহমদ,জুনেদ আহমদ, মোমিনুল ইসলাম, পাবেল আহমদ, আবু সালেহ মুসা রায়হান, সাহিব আহমদ, শুভাকাঙ্ক্ষী সাইদুল ইসলাম, মিশকাত আহমদ, সাকিব আহমদ,মাসুদ আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সংগঠনের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল সাজু জানান, আমরা বন্যা কবলিত এলাকায় খাদ্য বিতরণের উদ্যোগ নিই। এরমধ্যে গণমাধ্যমে গবাদিপশু নিয়ে একটি সংবাদ দেখে পশুর জন্য খাদ্য বিতরণের সিদ্ধান্ত নিই। গাবাদিপশুর জন্য ঘাস ও দানাদার খাবার বিতরণ করা হয়েছে। পাশাপাশি ৫’শ মানুষের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করা হয়েছে।