মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



                    চাইলে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন

চূড়ায় ওঠার রাতে রেকর্ডের বরপুত্র মেসি



বিজ্ঞাপন

স্পোটর্স ডেস্ক:: স্বপ্নপূরণ কিংবা অপূর্ণতা দূর করা যেভাবে খুশি বলা যায়। লিওনেল মেসি যেন এখন যেন সপ্তম স্বর্গে আছেন। তিনি যে এখন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। বিশ্ব জয়ের চেষ্টায় গত ৪ আসরে শূন্য হাতে ফিরলেও। এবার ঠিকই আদায় করে নিলেন নিজের প্রাপ্যটুকু। তবে সব মিলিয়ে ৫ আসরে বিশ্বকাপ খেলতে এসে মেসি গড়েছেন অসংখ্য রেকর্ড। যে মেসিকে বিশ্বকাপ বারবার ফিরিয়ে দিয়েছে, তিনিই এখন বিশ্বকাপে রেকর্ডের বরপুত্র।

বিশ্বকাপের মঞ্চে মেসির যত রেকর্ড

* ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২১টি গোলে জড়িয়ে আছে মেসির নাম (১৯৬৬ বিশ্বকাপ থেকে রেকর্ড রাখার পর)। সব মিলিয়ে ১৩টি গোল এবং অন্য ৮টিতে সহায়তা আছে তাঁর।

* বিশ্বকাপ ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে গ্রুপপর্ব, শেষ ষোলো, কোয়ার্টার ফাইনাল এবং ফাইনালে গোল করার কৃতিত্ব গড়লেন মেসি।

* ৫টি বিশ্বকাপ খেলা ৬ খেলোয়াড়ের একজন হলেন মেসি। আর্জেন্টাইন অধিনায়ক ছাড়া এই কৃতিত্ব গড়েছেন তিন ম্যাক্সিকান খেলোয়াড় আন্তোনিও কারবাহাল, আন্দ্রেস গুয়াদ্রাদো ও রাফা মার্কুয়েজ। অন্য দুজন হলেন জার্মানির লোথার ম্যাথাউস এবং পর্তুগালের ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

বাতিস্তুতার রেকর্ড ভাঙার দিনে মেসির আরেক রেকর্ড | The Business Standard

* আজ ফাইনালে মাঠে নেমেই বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়লেন মেসি। এর আগে সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে নেমে জার্মান কিংবদন্তি ম্যাথাউসের ২৫ ম্যাচ খেলার রেকর্ড স্পর্শ করেছিলেন মেসি।

*অধিনায়ক হিসেবে ১৯ ম্যাচ খেলে অনন্য এক চূড়া ছুঁয়েছেন মেসি। এর আগে এই কীর্তি ছিল ১৭ ম্যাচ খেলা মার্কুয়েজ এবং ১৬ ম্যাচ খেলা ডিয়েগো ম্যারাডোনার।

*বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি সময় মাঠে থাকা খেলোয়াড় এখন মেসি। তিনি মাঠে ছিলেন ২,৩১৪ মিনিট। মেসি রেকর্ড গড়ায় দ্বিতীয় স্থানে চলে গেলেন ইতালিয়ান কিংবদন্তি পাওলো মালদিনি। যিনি সব মিলিয়ে ২,২১৭ মিনিট মাঠে ছিলেন।

* পাঁচটি বিশ্বকাপে গোলে সহায়তা করা একমাত্র খেলোয়াড় এখন মেসি। তাঁর কাছাকাছি আছেন পেলে, গ্রজেগর্জ লাতো, ম্যারাডোনা এবং ডেভিড বেকহাম। তারা সবাই তিনটি বিশ্বকাপে গোলে সহায়তা করেছেন। তবে নকআউটে গোলে ৬টি করে অ্যাসিস্ট করেছেন মেসি ও পেলে।

*বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার হয়ে সবচেয়ে বেশি গোল এখন মেসির। এ বিশ্বকাপের ৫ গোলসহ মোট ১৩টি গোল করেছেন মেসি। তাঁর পরে আছেন গ্যাব্রিয়েল বাতিস্ততা (১০), ম্যারাডোনা (৮), গিলের্মো স্তাবিলে (৮), মারিও কেম্পেস (৬) এবং গনসালো হিগুয়েন (৫)।

* বড় টুর্নামেন্টে দক্ষিণ আমেরিকার খেলোয়াড় হিসেবে সর্বোচ্চ ২৬ গোল এখন মেসির।

*১৯৮২ বিশ্বকাপ থেকে শুরু হওয়া গোল্ডেন বলের পুরস্কার একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে দুইবার জিতলেন মেসি।