মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



                    চাইলে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন

ভোটযুদ্ধে তারকারা
নিউজ ডেস্ক

নিউজ ডেস্ক



বিজ্ঞাপন

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শোবিজের সর্বাধিক তারকা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তবে এরইমধ্যে নির্বাচনের মাঠ থেকে অনেকে বিদায় নিয়েছেন। দল থেকে তাদের নমিনেশন দেয়া হয়নি। এরপরেও গেল কয়েক বছরের তুলনায় এবারই সর্বাধিক শোবিজ তারকা ভোটযুদ্ধে অংশ নেবেন। আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি এই তিনটি দল থেকে এই তারকারা নির্বাচন করবেন। শোবিজে বরাবরই তাদের দারুণ গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে। সব শ্রেণির দর্শকদের কাছে তারা বেশ সমাদৃত।

কিন্তু নির্বাচনের মাঠে বিজয়ের হাসি কে হাসবেন এখন সেটি দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন সকলে। নির্বাচনের মাঠেও নেমে পড়েছেন এই তারকারা। জোর প্রচারণায় তাদের দেখা যাচ্ছে। চলচ্চিত্রের ড্যাশিং হিরো খ্যাত মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা। ৭০ ও ৮০-এর দশকে ঢাকাই সিনেমার পর্দা কাঁপিয়েছেন দাপটের সঙ্গে। এবার রাজনীতির মাঠে নিজের কারিশমা দেখাতে প্রস্তুত তিনি। জাতীয় পার্টির টিকিটে আসন্ন সংসদ নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন তিনি। তাকে বরিশাল-২ (উজিরপুর-বানারীপাড়া) আসনে নির্বাচন করার জন্য দলের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে।

চলচ্চিত্রের মিয়াভাই খ্যাত অভিনেতা আকবর পাঠান ফারুক আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। তিনি প্রার্থী হয়েছেন ঢাকা-১৭ (গুলশান-বনানী, ক্যান্টনমেন্ট-ভাসানটেক) আসন থেকে।

প্রতিবারের মতো এবারো নীলফামারী-২ আসন থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন দাপুটে অভিনেতা ও সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। একই আসন থেকে ২০০১, ২০০৮ ও ২০১৪ সালে নির্বাচন হয়েছেন তিনি।

এদিকে অনিশ্চয়তা কাটিয়ে মনোনয়ন নিশ্চিত করেছেন মানিকগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম। ২০০৮ সালে প্রথমে সংরক্ষিত আসনে, দ্বিতীয়বার ২০১৪ সালের নির্বাচনে তিনি এমপি হন।

বিএনপি থেকে কনকচাঁপা মনোনয়ন পেয়েছেন সিরাজগঞ্জ-১, মনির খান পেয়েছেন ঝিনাইদহ-৩ ও বেবী নাজনীন পেয়েছেন নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) আসন থেকে।

হেলাল খান মূলত একজন চলচ্চিত্র ও টিভি নাটকের অভিনেতা এবং প্রযোজক। শোবিজের পাশাপাশি জাতীয়তাবাদী দলের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত তিনি। সিলেট-৬ আসনে বিএনপির টিকিট নিয়ে নির্বাচনে লড়বেন তিনি।

চলচ্চিত্র নায়িকা শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির সঙ্গেও যুক্ত নব্বই দশক থেকে। আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ফরিদপুর-৪ আসন থেকে ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হবেন তিনি। নিজের ক্যারিয়ারের পাশাপাশি এই তারকারা দেশ ও জাতির জন্য কাজ করতে চান বলে ইচ্ছে প্রকাশ করেন। দলের জনপ্রিয়তার পাশাপাশি নিজের জনপ্রিয়তাকেও কাজে লাগানোর জন্য তারা নির্বাচন করছেন বলে জানান।

শোবিজ সংশ্লিষ্টরা মনে করেন, এবারের নির্বাচনে যে সকল তারকা লড়ছেন তারা প্রত্যেকে দীর্ঘদিন দলের সঙ্গে জড়িত আছেন। বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কাজকর্মেও তারা অংশগ্রহণ করেন। তাদের মেধা ও জনপ্রিয়তাকে পুঁজি করে নিশ্চয় তারা দেশের জন্য ভালো কিছু করবেন।

প্রসঙ্গত, পুনঃতফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিলো গত ২৮ নভেম্বর বুধবার। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ২ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রতীক বরাদ্দ ১০ ডিসেম্বর। আর ভোটগ্রহণ ৩০ ডিসেম্বর।