মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ



                    চাইলে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন

সুনামগঞ্জে ঢলের স্রোতে ভেসে গিয়ে দুই সন্তানসহ মা নিখোঁজ



বিজ্ঞাপন

লাতু ডেস্ক:: সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় ঢলের পানিতে ভেসে গিয়ে দুই শিশু ও এক নারী নিখোঁজ হয়েছেন। সোমবার রাত ১০টা পর্যন্ত তাঁদের খোঁজ মেলেনি। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে শাল্লা উপজেলা সদরের দাঁড়াইন নদীর তীরে বাহাড়া সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ নারী ও শিশুদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। তাঁদের সম্পর্ক কী, তা–ও জানা যায়নি। মধ্যবয়সী ওই নারীর সঙ্গে থাকা শিশুদের বয়স ৭ থেকে ১০ হবে।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে শাল্লা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আবু তালেব জানান, সদরের মূল সড়কের বড় সেতুর কাছাকাছি বাহাড়া সড়কে একটি কালভার্ট আছে। এটি কিছুটা দেবে গেছে। এখন বৃষ্টিতে সেখানে হাঁটুসমান পানি। ঢলের পানির স্রোত ঢুকছে দাঁড়াইন নদীতে। সন্ধ্যায় ওই নারী দুই শিশুকে সঙ্গে নিয়ে কালভার্টের প্লাবিত অংশ পার হয়ে সদরে আসতে চাইছিলেন। তখন সেখানে থাকা একজন মোটরসাইকেলচালক পানিতে স্রোত বেশি থাকায় ওই নারীকে এদিকে আসতে নিষেধ করেন। কিন্তু তিনি এ কথা না শুনে শিশু দুজনকে নিয়ে আসতে গিয়ে পানির তোড়ে ভেসে যান। তাৎক্ষণিক একজন পানিতে নামলেও তাঁদের উদ্ধার করা যায়নি।
খবর পেয়ে ইউএনও এবং এক দল পুলিশ ঘটনাস্থলে যান। এর পর থেকে স্থানীয় লোকজন কয়েকটি নৌকা নিয়ে তাঁদের খোঁজ করছেন। কিন্তু রাত ১০টা পর্যন্ত তাঁদের সন্ধান মেলেনি।

ইউএনও মো. আবু তালেব বলেন, প্রত্যক্ষদর্শী ওই মোটরসাইকেল চালকের সঙ্গে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক কর্মকর্তাও ছিলেন। তিনিও নিশ্চিত করেছেন ওই নারী ও শিশুদের পানিতে ভেসে যাওয়ার বিষয়টি। তবে তাঁদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। কিংবা তাঁরা কোথা থেকে কেন উপজেলা সদরে আসছিলেন, সেটিও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

শাল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ আছে। স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় নিখোঁজ ব্যক্তিদের সন্ধান চলছে।