শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



আসাদকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন ট্রাম্প



বিজ্ঞাপন

গত বছর সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস ট্রাম্পের ওই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।

‘ওয়াটারগেট’ কেলেঙ্কারির প্রতিবেদনের জন্য বিখ্যাত সাংবাদিক বব উডওয়ার্ডের লেখা নতুন বইতে এ দাবি করা হয়েছে। ‘ফিয়ার: ট্রাম্প ইন দ্য হোয়াইট হাউস’ নামের বইটি ১১ সেপ্টেম্বর প্রকাশের জন্য দিনক্ষণ নির্ধারিত রয়েছে। তবে মঙ্গলবার ওয়াশিংটন পোস্ট বইটির কিছু অংশ প্রকাশ করেছে।

বইটিতে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের উপদেষ্টারা প্রেসিডেন্টের অনেক আচরণকে ধ্বংসাত্মক ও বিপজ্জনক হিসেবে দেখেন। তাই তারা কখনো কখনো প্রেসিডেন্টের আদেশ অমান্য করেন।

বইটিতে ট্রাম্পকে হুটহাট ক্ষেপে যাওয়া এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে আবেগতাড়িত ব্যক্তি হিসেবে চিত্রায়িত করা হয়েছে। ট্রাম্পের এ আচরণের ফলে প্রশাসনের ভেতর নিয়মিত অস্থিরতা দেখা দেয় এবং নির্বাহী বিভাগে প্রায়ই ‘বিচলিত’ অবস্থার সৃষ্টি হয় বলে দাবি করেছেন উডওয়ার্ড।

বইটিতে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে সিরিয়ায় বেসামরিক নাগরিকদের ওপর রাসায়নিক হামলার পর দেশটির প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে হত্যা করার কথা প্রতিরক্ষামন্ত্রী ম্যাটিসকে বলেছিলেন ট্রাম্প।

ম্যাটিস ওই সময় ট্রাম্পকে ‘এটাই ঠিক আছে’বলে জানিয়েছিলেন। কিন্তু পরে তিনি সিরিয়ায় স্বল্প আকারের বিমান হামলার পরিকল্পনা করেন যা ব্যক্তি আসাদের ওপর হুমকি ছিল না। পৃথক ঘটনায় ম্যাটিস তার সহকর্মীদের কাছে ট্রাম্পের আচরণকে ‘পঞ্চম-ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রদের মত’ বলে অভিহিত করেছিলেন।

টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে বইয়ে দেওয়া তথ্য ও উপদেষ্টাদের সঙ্গে তার সম্পর্ক চিত্রায়নের তীব্র সমালোচনা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এছাড়া ডেইলি কলারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘এটি আরেকটি বাজে বই।’