বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



শায়েস্তাগঞ্জে ডাকাতকে গণপিটুনি
নিউজ ডেস্ক

নিউজ ডেস্ক



বিজ্ঞাপন

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে ডাকাত দলের অস্ত্রের আঘাতে রাবিয়া খাতুন (৪০) নামে এক নারী আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জানে আলম (২০) নামে এক ডাকাতকে আটকের পর গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।

সোমবার ভোরে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার সুরাবই গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

আটক জানে আলম লাখাই উপজেলার সিংহগ্রামের কাছুম আলীর ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার ভোরে সুরাবই গ্রামের আব্দুল করিমের বাড়িতে ১০-১২ জনের একদল ডাকাত হানা দেয়। আব্দুল করিম, তার স্ত্রী এবং ৪ সন্তানকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মালামাল লুটে করে তারা। এ সময় ডাকাতের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হন রাবিয়া খাতুন।

পরবর্তীতে ওই পরিবারের সদস্যদের চিৎকারে স্থানীয় জনতা এগিয়ে এসে ডাকাতদের ধাওয়া করেন। এ সময় জানে আলমকে আটক করলেও বাকিরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন এলাকাবাসী।

আহত রাবিয়াকে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান জানান, স্থানীয় জনতা এক ডাকাতকে পুলিশে সোপর্দ করেছে। তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।