শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ফারিয়া রিমান্ডে
নিউজ ডেস্ক

নিউজ ডেস্ক



বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত ফারিয়া মাহজাবিনকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর গতকাল ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম মঈন উদ্দিন সিদ্দিকীর আদালতে হাজির করা হয় তাকে। এসময় মাহজাবিনের ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। শুনানি শেষে তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। আদালতে ফারিয়ার পক্ষে কোন আইনজীবী ছিল না। তার আগে র‌্যাব-২ এর ডিএডি পুলিশ পরিদর্শক মো. বদিউজ্জামান বাদী হয়ে তথ্য প্রযুক্তি আইনে হাজারীবাগ থানায় মামলা করেন।

সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ফারিয়া মাহজাবিন পুলিশকে জানিয়েছেন, তিনি কোনো দলের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত না। নৈতিকভাবে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন সমর্থন করেছেন। পরিকল্পিতভাবে কোনো মিথ্যা তথ্য তিনি দেননি। এমনকি এ ঘটনায় অন্য কারো সংশ্লিষ্টতা নেই বলে দাবি করেছেন ফারিয়া মাহজাবিন। তবে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বেশিরভাগ সময় নীরব থেকেছেন।

এ বিষয়ে হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম আলী মিয়া জানান, ফারিয়া মাহজাবিনকে জিজ্ঞাসবাদ করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে তার ফেসবুক আইডির প্রিন্ট ও অডিও ক্লিপের একটি কপি আমরা পেয়েছি। ফারিয়া মাহজাবিন গুজব ছড়িয়েছেন দাবি করে মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে হাজারীবাগ ওসি ইকরাম আলী মিয়া বলেন, শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন চলাকালে গত ৪ঠা আগস্ট ফেসবুকে, ম্যাসেঞ্জারে গুজব ছড়িয়ে দেন। অডিও বার্তাতে তিনি বলেছেন, ঝিগাতলায় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালিয়ে তাদের তিন জনকে হত্যা করা হয়েছে। এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এই গুজব ছড়ানোর দায়ে ফারিয়া মাহজাবিনের বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

তার আগে বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১১টায় মাহজাবিনের ধানমন্ডির বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এসময় তার মোবাইলফোন জব্দ করা হয়। র‌্যাব জানিয়েছে, আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর উদ্দেশ্যে বিভিন্ন রকম স্ট্যাটাস ও উস্কানিমূলক মিথ্যা তথ্য সম্বলিত আডিও ক্লিপ রেকর্ড করে পোস্ট করতেন তিনি। মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করে ফেসবুক ও মেসেঞ্জারের মাধ্যমে ছাত্র আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে বিভ্রান্তমূলক স্ট্যাটাস প্রকাশ করেন। গোয়েন্দা সূত্রে বিষয়টি জানতে পারে অভিযান চালিয়ে মাহজাবিনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

খুলনার মেয়ে ফারিয়া মাহজাবিন দীর্ঘদিন থেকে ধানমন্ডির হাজী আফসার উদ্দিন রোডের ২৫/১ কিংস প্যালেসের দশ তলার একটি ফ্ল্যাটে বসবাস করছেন। তার স্বামী মিতেব মো. রিয়াসাত।