রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ



                    চাইলে বিজ্ঞাপন দিতে পারেন

বড়লেখা থানা পুলিশের অভিযানে ৫টি চোরাই গরু উদ্ধার, গ্রেপ্তার ২



বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক:: মৌলভীবাজারের বড়লেখা থানা পুলিশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ৫টি চোরাই গরু উদ্ধার করেছে। এসময় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ছোয়াব আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান ওরফে আবুল এবং হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার ইব্রাহীম চৌধুরীর ছেলে দুলাল চৌধুরী। শুক্রবার (১৩ জুন) বিকেলে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গত ১২ জুন দিবাগত রাতের কোনো এক সময় অজ্ঞাতনামা চোরেরা বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউনিয়নের পেনাগুল গ্রামের হারুন আহমদের ৩টি গরু এবং তার প্রতিবেশী মুসলিম উদ্দিনের ২টি গরু গোয়াল ঘর থেকে চুরি করে নিয়ে যায়। এই ঘটনায় পরদিন বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) গরুর মালিক হারুন আহমদ বাদি হয়ে বড়লেখা থানায় মামলা করেন। মামলার পরই বড়লেখা থানার ওসি সঞ্জয় চক্রবর্ত্তীর নির্দেশে এসআই স্বপন কান্তি দাসের নেতৃত্বে এসআই আতাউর রহমান অভিযানে নামেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওইদিন রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি রাস্তার পাশ থেকে চুরি যাওয়া ৫টি গরু ও চুরির কাজে ব্যবহৃত একটি পিকআপ গাড়ি জব্দ করা হয়। এসময় গরুচোর দুলাল চৌধুরী ও হাবিবুর রহমান ওরফে আবুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বড়লেখা থানার ওসি সঞ্জয় চক্রবর্ত্তী শুক্রবার বিকালে বলেন, বড়লেখা থেকে চুরি হওয়া ৫টি গরু উদ্ধাসহ দুই চোরকে নাসিরনগর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আবুল ও দুলাল আন্ত:জেলা চোর দলের সক্রিয় সদস্য। তারা সিলেটের বিভিন্ন এলাকায় গরু চুরি করেছে বলে স্বীকার করেছে। আবুলের বিরুদ্ধে একাধিক চুরি, ডাকাতি, ডাকাতির প্রস্তুতি ও খুনের মামলা রয়েছে। দুই চোরকে শুক্রবার বিকালে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।