শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



সিলেট জেলা বিএনপি সভাপতির বাসায় পুলিশের গুলি, আটক ৭
ডেস্ক রিপোর্ট

ডেস্ক রিপোর্ট



বিজ্ঞাপন

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামীমের বাসায় গুলি চালিয়ে ৭ কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় পুলিশ প্রায় এক ঘন্টা ওই বাসা ঘেরাও করে রাখে। পুলিশ বলছে, বাসার ভেতর থেকে পুলিশের উপর হামলা চালানো হলে তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গুলি ছুঁড়েছে।

১৬ সেপ্টেম্বর রোববার নগরীর সোবহানীঘাটের যতরপুর এলাকা থেকে এ নেতাকর্মীদের আটক করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এসময় সেখান থেকে ৩টি মোটর সাইকেল ও ৩টি পাসপোর্ট জব্দ করে পুলিশ।

বিএনপির সভাপতি শামীমের দাবি, পুলিশ তার বাসায় গুলি চালিয়ে নেতাকর্মীদের ধরে নিয়ে গেছে। সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদের মাতা চম্পা খানমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে রোববার বাদ আসর নগরীর সোবহানীঘাটস্থ মৌবন জামে মসজিদে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

মিলাদ শেষে কয়েকজন নেতাকর্মীকে নিয়ে নিজ বাসায় আসেন আবুল কাহের শামীম। এ সময় শাহপরান থানা পুলিশ এসে তার বাসা ঘেরাও করে। আবুল কাহের শামীম জানিয়েছেন, মিলাদ শেষে আমার সঙ্গে ৪-৫ জন কর্মী বাসায় আসে।

কোতোয়ালি থানার ওসি মোশারফ হোসেন জানিয়েছেন, মৌবনের ওই বাসায় নাশকতার জন্য বৈঠক চলছিল বলে পুলিশের কাছে খবর ছিল। এ সময় পুলিশ এলাকায় আসলে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ১২ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ সময় জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এখলাছুর রহমান মুন্নাসহ ৭ জনকে আটক করা হয়েছে