শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



রাগীব আলী ও ছেলের জামিন
ডেস্ক রিপোর্ট

ডেস্ক রিপোর্ট



বিজ্ঞাপন

১৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত সিলেটের আলোচিত ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি রাগীব আলী ও তাঁর ছেলে আব্দুল হাই ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক জালিয়াতি ও প্রতারণার মাধ্যমে তারাপুর চা-বাগানের দেবোত্তর সম্পত্তি আত্মসাতের মামলায় উচ্চ আদালত থেকে ৬ মাসের জন্য জামিন পেয়েছেন।

রাগীব আলীর রিভিশন পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার হাই কোর্টের বিচারপতি শওকত হোসাইন তাদের ৬ মাসের জামিন মঞ্জুর করেন।

রাগীব আলীর আইনজীবী ব্যারিস্টার আব্দুল হালিম কাফি বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমি ছাড়াও রাগীব আলীর পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন, ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস, ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান চৌধুরী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল জহিরুল হক।

ব্যারিস্টার আব্দুল হালিম কাফি বলেন, গত ৯ আগস্ট সিলেটের বিশেষ দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিকের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে রিভিশন দাখিল করেন রাগীব আলী ও তার ছেলে আব্দুল হাই। রিভিশনের শুনানি শেষে তাদের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।

তারাপুর চা-বাগানের দেবোত্তর সম্পত্তি দখলের মামলায় ২০১৭ সালের ২ ফেব্রুয়ারি সিলেটের চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) পৃথক পাঁচটি ধারায় রাগীব আলী ও তার ছেলে আব্দুল হাইকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড দেন।

এ রায়ের বিরুদ্ধে করা আপিল শুনানি শেষে গত ৯ আগস্ট বিশেষ দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক নিম্ন আদালতের সাজা বহাল রাখেন।

১২ সেপ্টেম্বর সিলেটের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মোহাম্মদ মোস্তাইন বিল্লাহর আদালতে হাজির হয়ে জামিনের প্রার্থনা জানালে জামিন নামঞ্জুর করে আদালত তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।