শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



বড়লেখার কুমারশাইল সীমান্তে চার রোহিঙ্গাসহ আটক ৫



বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক:: মৌলভীবাজারের বড়লেখার কুমারশাইল সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারত প্রবেশের চেষ্টাকালে চার রোহিঙ্গা শরনার্থীসহ ৫ জনকে আটক করেছে স্থানীয়রা। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন-মো. রিয়াজ উদ্দিন (১৮), মো. সালমান (৩৫), আব্দুর রাজ্জাক (২৩), নুর কলিমা (১৬) এবং বান্দরবনের নাইক্ষ্যংছড়ি থানার বাসিন্দ মো. রিয়াজ (২৩)।

পুলিশ জানিয়েছে, আটক হওয়া পাঁচজনের জনের মধ্যে চারজনকে পুলিশ স্কটের মাধ্যমে উখিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। আর নাইক্ষ্যংছড়ি থানার বাসিন্দ মো. রিয়াজকে (২৩) আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এর আগে চলতি বছরের ২৪ আগস্ট সকালে উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের কুমারশাইল সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারতে যাওয়ার সময় ৭ রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছিল।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ফতেহবাগ চা বাগানস্থ চৌমুহনায় রোববার ভোরবেলায় কয়েকজনকে সন্দেহজনকভাবে ঘুরাফেরা করতে দেখে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হয়। এসময় স্থানীয়রা তাদের আটক করে পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে শাহবাজপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ সেখানে গিয়ে তাদের আটক করে।

শাহবাজপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মোহাম্মদ মাসুক মিয়া রোববার সন্ধ্যায় মুঠোফোনে বলেন, কুমারশাইল সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারত প্রবেশের চেষ্টাকালে ৪ রোহিঙ্গা শরনার্থীসহ ৫ জনকে আটক করেন স্থানীয় লোকজন। তারা কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে পালিয়ে এসেছে। তিনি বলেন, কুমারশাইল সীমান্ত দিয়ে তারা অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের চেষ্টা চালিয়েছিল বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। আটককৃতদের মধ্যে ৪ জন রোহিঙ্গা। তাদের পুলিশ স্কটের মাধ্যমে উখিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে। আর একজনের বাড়ি নাইক্ষ্যংছড়ি থানায়। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।