শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



লন্ডনে ব্যারিস্টার ডিগ্রি অর্জন করলেন বড়লেখার সালাহ উদ্দিন সুমন



বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক :: লন্ডনের লিঙ্কন’স ইন -এর ব্যারিস্টার হিসেবে এনরোল (নথিভুক্ত) হয়েছেন মো. সালাহ উদ্দিন সুমন।

গত ২৮ জুলাই বৃহস্পতিবার ব্যারিস্টার হিসেবে তাকে এনরোল করা হয়েছে।

মৌলভীবাজার বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুরের কৃতি সন্তান মো. সালাহ উদ্দিন সুমন এর আগে লন্ডন মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি থেকে প্রোফেশনাল লিগ্যাল স্টাডি (এলপিসি) কোর্স সম্পন্ন করেন এবং পরবর্তীতে সলিসিটর হিসাবে এনরোল হন। তিনি ২০১৭ সালে লন্ডন সাউথ ব্যাংক ইউনিভার্সিটি থেকে ল’ কনভার্সন ডিগ্রি (PGD in Law) এবং ২০১২ সালে ইউনিভার্সিটি অব ওয়েলস থেকে এমবিএ ডিগ্রি অর্জন করেন।

সালাহ উদ্দিন সুমন উচ্চ শিক্ষার জন্য ব্রিটেনে পাড়ি জমানোর আগে সিলেট এমসি কলেজ থেকে গণিতে অনার্সসহ মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবনে তিনি ২০১৯ সালের মে মাসে ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান, ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলাম এবং ব্যারিস্টার সাঈদ হাসানকে নিয়ে ”ল’মাটিক সলিসিটর” নামে একটি ল’ ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে ল’ ফার্মে প্রায় ২৫ জন আইনজীবী কর্মরত রয়েছেন।

ইতোমধ্যে ফার্মটি ইমিগ্রেশন, ফ্যামিলি, প্রপার্টি, কনভেয়ান্সিং, হাউসিং ও লিটিগেশনসহ আইনের প্রায় সকল বিষয়ে কমিউনিটির সেবা দক্ষতার সাথে দিয়ে যাচ্ছে ও সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সালাহ উদ্দিন সুমন বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার ব্রিটেন প্রবাসী একমাত্র সলিসিটর এবং ব্যারিস্টার যিনি প্রথম সলিসিটর ল’ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন।

অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে তিনি লাতু এক্সপ্রেসকে বলেন, সিলেট এমসি কলেজ থেকে গণিতে মাষ্টার্স শেষ করার পরে অনেক স্বপ্ন নিয়ে উচ্চ শিক্ষার উদ্দেশ্যে লন্ডনে পাড়ি জমাই। আল্লাহর রহমতে দীর্ঘ বিরামহীন অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল হিসেবে সলিসিটর ও ব্যারিস্টার ডিগ্রি অর্জন করেছি। এরমধ্যেই ”ল’মাটিক সলিসিটর” নামে একটি ল’ ফার্ম প্রতিষ্ঠা করতে সফল হয়েছি। যেখানে প্রায় ২৫ জন আইনজীবীর কর্মসংস্থান হয়েছে। এই সফলতায় আমি অত্যন্ত খুশি।

উল্লেখ্য, ব্যারিস্টার সালাহ উদ্দিন সুমনের জন্ম বড়লেখা উপজেলার উত্তর শাহবাজপুরের নান্দুয়া গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে। তাঁর বাবা মরহুম আজমল আলী তাপাদার পেশায় একজন পোস্ট মাস্টার ছিলেন ও মা সাহেদা বেগম গৃহিনী। ৬ ভাইয়ের মধ্যে তাঁর অবস্থান ৪র্থ। ব্যক্তি জীবনে তিনি ৩ কন্যা সন্তানের জনক এবং লন্ডনের রেডব্রিজ বারার স্থায়ী বাসিন্দা।