শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



সিলেট থেকে ছেড়ে যাওয়া লন্ডনগামী ফ্লাইটে হাতাহাতি, লন্ডনে ৭ যাত্রী আটক



বিজ্ঞাপন

লাতু ডেস্ক:: সিলেট থেকে লন্ডনগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৭ যাত্রীকে আটক করেছে হিথ্রো বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থাও নেয়া হয়েছে। গত ২৫ মে সিলেট থেকে সরাসরি লন্ডনগামী বিমানের ফ্লাইটে ওই হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। তবে ওই ৭ যাত্রীর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

গত বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, যাত্রীবাহী একটি বিমানের ভেতর কয়েকজন যাত্রীর সঙ্গে বিমানের অন্য যাত্রীদের হাতাহাতি হয়। ভিডিওটি বেশ কয়েকটি বাংলাদেশি গণমাধ্যম তাদের ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করে।

ভিডিওতে দেখা যায়, একজন যাত্রী উত্তেজিত অবস্থায় চিৎকার করে তার নিজের সিটে দাঁড়িয়ে যান। এরপর তিনি ‘স্টপ স্টপ’ বলে চিৎকার করতে থাকেন। তারপর তিনি তার পেছনের সিটে থাকা নারী যাত্রীকে আক্রমণ করেন। এ সময় অন্য যাত্রীরাও হাতাহাতিতে অংশ নেন। যিনি আক্রমণ করছিলেন তাকে এ সময় অনেকে ভর্ৎসনা করেন।

সেখানে সিলেটি ভাষায় ঝগড়াঝাটির শব্দ আসে। তবে ভিডিওটির অডিওতে অস্পষ্টতা থাকায় কী বলা হয়েছে তা শোনা যায়নি।

কী নিয়ে এমন অনাকাঙিক্ষত ঘটনার সূত্রপাত সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি। ভিডিওটি নিয়ে ইতোমধ্যেই সমালোচনার ঝড় বইছে ফেসবুকসহ অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমে।

মোহাম্মদ হোসাইন নামে এক ব্যক্তি বলেন, আকাশে বিমানের ভিতরে এ ধরনের ঘটনা কতটা ঝুঁকিপূর্ণ তা বোঝার ক্ষমতা এসব যাত্রীর নেই। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে ভিডিও ফুটেজ দেখে তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা উচিত।

ফাইরুজ নামের আরেকজন বলেন, কী নিয়ে ঝগড়া হয়েছে? সবাই আজকাল একটুতেই এতো উত্তেজিত হয়ে যায়!

বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সালেহ মোস্তফা কামাল বলেন, ‘আমরা যদ্দুর জেনেছি, সামনের সারির এক যাত্রীর পায়ে পা লেগে যাওয়াকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত। এরপর ওই হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা খুবই দুঃখজনক যে বিমানের কয়েকজন যাত্রী এ ধরনের অশোভন ঘটনা ঘটিয়েছেন।’

আবু সালেহ জানান, ফ্লাইটটি হিথ্রো বিমানবন্দরে অবতরণের পর ফ্লাইটের কেবিন ক্রুরা স্ট্যান্ডার্ড অপারেশনাল প্রসিডিউর অনুযায়ী ঘটনাটি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করা হয়। পরে হাতাহাতির ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৭ যাত্রীকে হিথ্রো বিমানবন্দরের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আটক করে। তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।