বুধবার, ২৯ জুন ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



বড়লেখায় ঝড়ে গাছ পড়ে সড়কে যান চলাচল ব্যাহত, বিদ্যুৎ বিপর্যয়



বিজ্ঞাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক:: মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ঝড়ে পৃথক স্থানে গাছ উপড়ে সড়কে উপর পড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। এসময় বিদ্যুতের কয়েকটি খুঁটি ভেঙে ও তার ছিঁড়ে উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে পড়ে। এতে সড়কের উভয়পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েন চালক ও যাত্রীরা। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ও পৌরসভার লোকজন গাছগুলো সরিয়ে নেওয়ার পর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এদিকে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুৎ লাইন মেরামতের পর বৃহস্পতিবার বেলা দুইটার দিকে উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়েছে বলে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস, পল্লী বিদ্যুৎ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার (১৯ মে) ভোর সাড়ে চারটার দিকে বড়লেখায় প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টি শুরু হয়। ঝড়ে বড়লেখা-শাহবাজপুর সড়কের পৌরসভার উত্তর চৌমুহনী এলাকায় বিশাল আকৃতির একটি শিমুল গাছ বিদ্যুতের খুটির উপর ভেঙে পড়ে। এতে বিদ্যুতের খুটিও ভেঙে যায়। অন্যদিকে বড়লেখা-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের আদিত্যের মহাল এলাকায় একটি গাছ বিদ্যু সঞ্চালন লাইন ছিড়ে সড়কের উপর পড়ে। এতে সড়কে যান চলাচলা বন্ধ হয়ে পড়ে। ফলে উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। সকালে খবর পেয়ে পৌরসভার মেয়র আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী ও ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবুল হাসিম স্বপন ঘটনাস্থলে যান। পরে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ও পৌরসভার লোকজন বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে সড়ক থেকে গাছগুলো সরিয়ে নেন। এরপর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। এদিকে পল্লী বিদ্যুতের লোকজন ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বিদ্যুতের খুঁটি ও লাইন মেরামতের পর বৃহস্পতিবার বেলা দুইটার দিকে উপজেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়।

বড়লেখা পৌরসভার পৌরসভার মেয়র আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী বৃহস্পতিবার বিকেলে বলেন, ভোরবেলা আকস্মিক ঝড়ে বড়লেখা-শাহবাজপুর সড়কে আঞ্চলিক মহাসড়কের উপর একটি গাছ বৈদ্যুতিক মেইন লাইনে আঁচড়ে পড়ে। এতে বৈদ্যুতিক খুটি ভেঙে যায়। এছাড়া বড়লেখা-চান্দগ্রাম সড়কের আদিত্যের মহাল এলাকায় একটি ইউক্যালিপটাস গাছ বিদ্যুতের তার ছিড়ে সড়কের উপড়ে পড়ে। এতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পৌরসভার লোকজন গাছগুলো সরিয়ে নেন। এরপর যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

পল্লী বিদ্যুতের বড়লেখা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) এমাজ উদ্দিন সরদার বলেন, ঝড়ে বেশ কয়েকটি স্থানে গাছ পড়ে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙেছে। লাইন ছিঁড়েছে। এ কারণে রাতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ ছিল। পল্লী বিদ্যুতের লোকজন বিদ্যুতের খুটি ও ছিঁড়ে যাওয়া লাইনগুলো মেরামত করেছেন। এখন বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়েছে।

বড়লেখা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. শামীম মোল্লা বলেন, ভোরে প্রচণ্ড ঝড় হয়েছে। এতে কয়েকটি জায়গায় গাছ সড়কে উপড়ে পড়েছে। স্থানীয়রা ফোন করে জানানোর পর আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছগুলো সরিয়েছে।