সোমবার, ২৩ মে ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



সুনামগঞ্জে পল্লী বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে প্রাণ গেল মা-ছেলের



বিজ্ঞাপন

লাতু ডেস্ক:: ছেলে দীপ সরকারকে (৩) নিয়ে রাস্তার পাশের একটি নলকূপে গোসল করতে গিয়েছিলেন মা ঝুমা সরকার (৩৫)। সেখানে থাকা অবস্থায় বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে নলকূপের ওপর পড়লে দুজনই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান।

বিষয়টি দেখে তাঁদের রক্ষা করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয় ঝুমা সরকারের মেয়ে পূজা সরকারও (৭)। গুরুতর আহত অবস্থায় সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ উপজেলা সদরের নতুনপাড়া এলাকায় ১০ এপ্রিল রোববার দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঝুমা সরকারের স্বামী দেবজ্যোতি সরকার একটি উন্নয়ন সংস্থায় (এনজিও) কাজ করেন।

এ ঘটনা তদন্তে সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে।

দেবজ্যোতি সরকার বলেন, সকালে ঝড়ের কারণে বাসায় বিদ্যুৎ ছিল না। এ কারণে রাস্তার পাশের একটি নলকূপে ছেলে দীপকে নিয়ে গোসল করতে যান ঝুমা। নলকূপের দেয়াল ঘেঁষে পল্লী বিদ্যুতের একটি খুঁটি ছিল। একপর্যায়ে বিদ্যুৎ এলে বিকট শব্দে তার ছিঁড়ে মা-ছেলের ওপর পড়ে।

মা ও ভাইকে উদ্ধার করতে গিয়ে আহত হওয়া পূজা সরকারকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জামালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর মো. আবদুন নাসের বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যাওয়া মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের মহাব্যবস্থাপক সুজিত কুমার বিশ্বাস বলেন, এ ঘটনা তদন্তে সুনামগঞ্জ পল্লী বিদ্যুতের উপমহাব্যবস্থাপক (কারিগরি) মকবুল হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাঁরা কাজ শুরু করেছেন।