রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১০ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



মৌলভীবাজার ও রাজনগরে জামানত হারালেন নৌকার ৫ প্রার্থী



বিজ্ঞাপন

নিউজ ডেস্ক: মৌলভীবাজারে বহিস্কারও ঠেকাতে পারেনি আট বিদ্রোহী প্রার্থীর জয়। এরই মধ্যে জেলার দুই উপজেলায় পাঁচ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়ার খবরে জেলাজুড়ে চলছে নানা সমালোচনা। ইউপি নির্বাচনে প্রাপ্ত ভোটের আট শতাংশ না পাওয়ায় তাদের জামানত বাজেয়াপ্ত হবে।

মৌলভীবাজার সদর ও রাজনগরের ২০ ইউনিয়নে ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সদর উপজেলার ১২ ইউনিয়নের মধ্যে মনুমুখ, আখাইলকুঁড়া, একাটুনা ও চাঁদনীঘাটে নৌকার প্রার্থী বিজয়ী
হয়েছেন। তিনটিতে বিএনপি এবং পাঁচটিতে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহীরা বিজয়ী হয়েছেন। রাজনগর উপজেলার দুই ইউনিয়নে সরাসরি ভোটে দু’টি এবং একটিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগ বিজয়ী হয়েছে। তিন ইউনিয়নে বিদ্রোহী, একটিতে বিএনপি এবং অপরটিতে নির্দলীয় স্বতন্ত্র প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন।

সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত জামানত হারানো প্রার্থীদের মধ্যে কামালপুর ইউনিয়নের আবদুর রহমান ৬০১ ভোট, মোস্তফাপুর ইউনিয়নে খসরু আহমদ ৭৮৪ ভোট ও গিয়াসনগরের সুরুক মিয়া পেয়েছেন ১৬১৪ ভোট।

রাজনগরের টেংরা এবং উত্তরভাগ ইউনিয়নে জামানত হারানো আওয়ামী লীগ প্রার্থী ভোট পেয়েছেন ২৬৪ ও ৯১৮। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের সাত প্রার্থীর ভোটের পরিসংখ্যানে তিন থেকে সাতে রয়েছে তাদের অবস্থান।

রাজনগরের ফতেপুর ইউনিয়নে বিজয়ী চেয়ারম্যান নকুল চন্দ্র দাশ (নৌকার বিদ্রোহী) বলেন, জনপ্রিয় প্রার্থীদের বাদ দিয়ে অখ্যাত, দুর্বল প্রার্থীদের দলে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এটি নৌকার পরাজয়ের কারণ।