বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



কুলাউড়ায় বাঘ আতঙ্কে ৪ গ্রামের মানুষ



বিজ্ঞাপন

নিউজ ডেস্ক: কুলাউড়া উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নে বাঘ আতঙ্কে আছেন ৪ গ্রামের মানুষ। সকালে মানুষের ওপর আক্রমণ করায় শিশুদের মক্তবের পড়ালেখা বন্ধ হয়ে পড়েছে। একাধিকবার সংঘবদ্ধভাবে বাঘের উপর হামলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

গত কয়েক দিন থেকে উপজেলার ব্রাহ্মণবাজার ইউনিয়নের সাতরা, নাছনী, রাজাপুর ও পশ্চিম জালালাবাদ (সাত নম্বর) এলাকায় একটি (চিতা আকৃতির) বাঘ অবাধে বিচরণ করছে। মানুষের ছাগল, রাজহাঁস, মোরগ মেরে ফেলছে।

বুধবার সকালে সাতরা গ্রামের আবুল কালামের ছেলে রাব্বি (১৪) ঘাস কাটতে বাড়ির পাশের জমিতে গেলে বাঘের আক্রমণের শিকার হয়। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে বাঘ তাদেরও ধাওয়া করে। ফলে বাঘ আতঙ্কে ঘুম নেই স্থানীয়দের।

জানা গেছে, এর আগে সাতরা গ্রামের জলিল মিয়ার একটি ছাগল দুপুরের দিকে বাড়ির পাশে মরে পড়ে আছে দেখতে পান। ছাগল মারা যাওয়ার কারণ খুঁজতে গিয়ে ছাগলের ঘাড়ের দিকে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়।

আঘাতের চিহ্ন দেখে কৌতূহল থেকে মোবাইল ফোন ক্যামেরা অন করে রেকর্ডে দিয়ে একটি গাছে রেখে দিলে কিছুক্ষণ পর আবার বাঘটি ছাগলের পাশে আসে। এতে স্থানীয় লোকজন প্রাণীটি বাঘ বলে নিশ্চিত হন।