বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



কোভিডের প্রথম মুখে খাওয়ার ওষুধ অনুমোদন দিল বৃটেন



বিজ্ঞাপন

নিউজ ডেস্ক: কোভিডের প্রথম মুখে খাওয়ার ওষুধের অনুমোদন দিয়েছে বৃটেন। ওষুধটি যৌথভাবে উৎপাদন করেছে মার্ক ও রিজব্যাক বায়োথেরাপিউটিকস। বৃহস্পতিবার বৃটেনের ‘মেডিসিন এন্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্ট রেগুলেটরি এজেন্সি’ বা এমএইচআরএ মহামারি মোকাবেলায় নতুন অস্ত্র হিসেবে ওষুধটির অনুমোদন দেয়। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

এমএইচআরএ পরামর্শ দিয়েছে, কারো কোভিড-১৯ সনাক্ত হওয়ার পর যত দ্রুত সম্ভব মলনুপিরাভির নামের এই ওষুধটি খেতে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রেও ওষুধটি অনুমোদনের আবেদন করা হয়েছে। এ মাসেই বিষয়টি নিয়ে বসবেন মার্কিন উপদেষ্টারা। গত মাসেই পরীক্ষা থেকে পাওয়া তথ্য বলছিল যে, মলনুপিরাভির ব্যবহারে কোভিড আক্রান্তদের মৃত্যু ও গুরুতর আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অর্ধেকে নেমে আসে। বৃটিশ সরকার ও দেশটির ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস দ্রুতই এই ওষুধের ব্যবহার নিয়ে পরিকল্পনা প্রকাশ করবে বলে রয়টার্সের খবরে জানানো হয়।

গত মাসেই বৃটিশ সরকার মার্কের সঙ্গে ৪ লাখ ৮০ হাজার কোর্স মলনুপিরাভির ক্রয়ের চুক্তি করেছিল। এক ভিন্ন বিবৃতিতে মার্ক জানিয়েছে, এ বছরের শেষ নাগাদ তারা মলনুপিরাভিরের ১০ মিলিয়ন কোর্স বিক্রি করতে সক্ষম হবে। ২০২২ সালে তারা আরও ২০ মিলিয়ন কোর্স উৎপাদন করবে বলেও ঘোষণা দিয়েছে কোম্পানিটি। ইতিবাচক ফলাফল পাওয়ায় নির্ধারিত সময়ের আগেই এ ওষুধের তৃতীয় ধাপের ট্রায়ালের ইতি টেনেছে মার্ক।

এ কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রবার্ট ডেভিস বলেন, কোভিডের চিকিৎসা নিয়ে সব আলোচনাই এ ওষুধ বদলে দেবে। মলনুপিরাভির তৈরি করা হয়েছে এমনভাবে যা ভাইরাসের জেনেটিক কোডে পরিবর্তন আনবে। উল্লেখ্য, রোশ ও ফাইজারও কোভিডের মুখে খাওয়ার ওষুধ তৈরির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।