বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৫ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



টাকার বিনিময়ে সিলেট ছাত্রলীগের কমিটি করার অভিযোগ



বিজ্ঞাপন

নিউজ ডেস্ক: কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক টাকার বিনিময়ে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন সংগঠনটির সিলেট জেলা শাখার সাবেক সভাপতি শাহরিয়ার আলম সামাদ।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সিলেট প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন।

সামাদ বলেন, ‘কমিটি গঠনে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের মতামত নেওয়া হয়নি। তাদের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করা হয়নি। এই কমিটিকে সংগঠনের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করেছে। আমরা কোনো ভাবেই অর্থের বিনিময়ে অছাত্র, গডফাদার, চেক ডিজঅনার মামলার আসামি, ফ্রিডম পার্টির নাতি নিয়ে ঘোষিত এই কমিটি মানবো না। এদের নিয়ে আমরা লজ্জিত ও বিব্রত’।

তিনি অভিযোগ করেন, ‘টাকা না দিতে পারায় ত্যাগী ও যোগ্যরা কমিটিতে স্থান পায়নি।’

সংবাদ সম্মেলনে কমিটি বাতিলের দাবিতে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) থেকে লাগাতার আবস্থান ধর্মঘট ও বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদস্য পদ থেকে সদ্য পদত্যাগকারী জাওয়াদ ইবনে জাহিদ খান ও ছাত্রলীগের অর্ধশত নেতাকর্মী।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য।

সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কমিটিতে সভাপতি করা হয়েছে মো. নাজমুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছে রাহেল সিরাজকে। অন্যদিকে মহানগর কমিটিতে সভাপতি হয়েছেন কিশওয়ার জাহান সৌরভ ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন নাঈম আহমদ।

অভ্যন্তরীন কোন্দলে ছাত্রলীগ কর্মী ওমর মিয়াদ হত্যার জেরে ২০১৭ সালের ১৮ অক্টোবর বিলুপ্ত করা হয় সিলেট জেলা ছাত্রলীগের কমিটি। আর ২০১৮ সালে সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পর ২১ অক্টোবর বিলুপ্ত করা হয় মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি।