বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ খ্রীষ্টাব্দ | ৬ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ



অবশেষে পর্যটকদের জন্য খুলেছে মাধবকুণ্ডের দুয়ার



বিজ্ঞাপন

এ. জে লাভলু :: প্রায় ৫ মাস বন্ধ থাকার পর অবশেষে দেশের অন্যতম পর্যটনকেন্দ্র মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত খুলে দেওয়া হয়েছে। এতে পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠেছে জলপ্রপাত এলাকা। স্বস্তি ফিরেছে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের মাঝে। কারণ দীর্ঘদিন পর তাদের বেচাকেনা ভালো হচ্ছে।

সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকালে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের প্রধান ফটক খুলে দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) শর্তসাপেক্ষে দেশের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেওয়া হলেও বন্ধ ছিল মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত। এতে মাধবকুণ্ডে ঘুরতে এসে পর্যটকরা হতাশ হয়ে ফিরে যান।

জানা গেছে, করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে গত ১ এপ্রিল মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত এলাকায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করে বনবিভাগ। বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ শর্তসাপেক্ষে দেশের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেয়। কিন্তু মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত খুলে দেওয়া হয়নি। বিষয়টি না জেনে মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতে ছুটে আসেন পর্যটকরা। কিন্ত ফটক বন্ধ থাকায় ঘুরতে আসা পর্যটকরা হতাশ হয়ে ফিরে যান। এদিকে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকালে মাধবকুণ্ড ইকোপার্কের প্রধান ফটক খুলে দেওয়া হয়েছে। এদিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত প্রায় ৫ শতাধিক পর্যটক মাধবকুণ্ডে ঘুরতে আসেন।

সরেজমিনে দেখা গেছে, মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের প্রধান ফটক খুলে দেওয়া হয়েছে। এতে মানুষজন ছুটে আসছেন মাধবকুণ্ডে। তারা জলপ্রপাত এলাকায় হৈ-হুল্লোড় করছেন। কেউ কেউ জলপ্রপাতের পানিতে সাতার কাটছেন।

সিলেট থেকে ঘুরতে আসা পর্যটক মাহিন আহমদ বলেন, বন্ধুদের সাথে ঘুরতে এসেছি। দীর্ঘদিন কোথাও ঘোরাঘুরি হয়নি। মাধবকুণ্ড আমার খুব পছন্দের একটি জায়গা। তাই খুলে দেওয়ার খবর পেয়ে ঘুরতে এসেছি। খুব ভালো লাগছে।

মাধবকুণ্ড পর্যটক সহায়ক ও উন্নয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক ব্যবসায়ী কবির হোসেন বলেন, আজ শুক্রবার সকালে মাধবকুণ্ডের গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার খুলে দেওয়ার কথা থাকলেও দেওয়া হয়নি। এতে অনেক পর্যটকরা ফিরে গেছেন। আজ অনেক পর্যটক ঘুরতে এসেছেন। তবে গতকালের চেয়ে কম। অবশ্য আমাদের বেচাকেনাও আগের চেয়ে ভালো হচ্ছে। পর্যটক বাড়লে আরও বেশি বেচকেনা হবে বলে আশা করছি।

মাধবকুণ্ড পর্যটন পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) প্রণীত চাকমা বলেন, আজ মাধবকুণ্ডের গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। খবর পেয়ে পর্যটকরা ঘুরতে আসছেন। পর্যটকদের নিরাপত্তায় আমরা সবসময় কাজ করছি।

বনবিভাগের বড়লেখা রেঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর রঞ্জন দাস শুক্রবার বিকেলে বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আজ মাধবকুণ্ড জলপ্রপাতের গেট খুলে দেওয়া হয়েছে। প্রথমদিনই প্রায় ৫ শতাধিক পর্যটক মাধবকুণ্ডে এসেছেন। আগামীতে পর্যটকরা আরও বাড়বেন বলে তিনি আশা প্রকাশ করছেন।