শনিবার, ৮ মে ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ



মৌলভীবাজারে পাওনাদারকে ধোঁকা দিতে ৪ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের নাটক!



বিজ্ঞাপন

নিউজ ডেস্ক: মৌলভীবাজারে কথিত টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনাটি ছিল সাজানো নাটক। পুলিশি তদন্তে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় পুলিশ রিপন দেবনাথ নামে এক যুবককে আটক করে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার কাছ থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসে।

পুলিশের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে আটক রিপন দেবকে মিথ্যা ছিনতাইয়ের ঘটনা সাজানোর দায়ে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। রিপন দেবনাথ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ভুজবল গ্রামের নীলমনি দেবনাথের ছেলে।

শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হক জানান, শান্তি ও নিরাপত্তা জোরদারে মডেল থানা পুলিশ সার্বক্ষণিকভাবে কাজ করে যাচ্ছে। মৌলভীবাজারের মত শান্তিপূর্ণ একটি শহরে ৪ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা প্রথমেই আমাদের কাছে সন্দেহ তৈরি হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ভিকটিম রিপন দেবনাথকে জিজ্ঞাসাবাদে প্রকৃত ঘটনার রহস্য উন্মোচন করতে সক্ষম হই আমরা।


তিনি আরও বলেন, প্রথমে খবর পেয়ে দ্রুত হাসপাতালে গিয়ে রিপন দেবনাথের সঙ্গে ঘটনার বিস্তারিত জানার চেষ্টা করি। তাতে তার দেওয়া তথ্য একেক সময় একেক রকম হওয়ায় তৈরি হয় খানিকটা সন্দেহ। এরপর তার দেওয়া তথ্যানুযায়ী ঘটনাস্থল এবং আশেপাশের সড়কের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পরীক্ষা ও পর্যালোচনা করেও এর কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি।

পুলিশ সূত্র জানায়, গত বুধবার (২১ এপ্রিল) মৌলভীবাজার শহরের কুসুমবাগ এলাকা থেকে ব্যবসায়ী রিপন দেব নাথৈর কাছ থেকে ছুরিকাঘাত করে ৪ লাখ টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায় বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়। এতে রীতিমত তোলপাড় সৃষ্টি হয় মৌলভীবাজার শহরজুড়ে।

সেখানে রিপন জানায়, তার মালিকানাধিন সমশেরগঞ্জ বাজারে অবস্থিত রেডিএন ডায়াগনস্টিক সেন্টারের আল্ট্রাসনোগ্রাম মেশিন ক্রয় করার জন্য মৌলভীবাজার শহরের কুসুমবাগ শপিং সিটিতে অবস্থিত সিটি ব্যাংকে চার লাখ টাকা জমা দিতে যান। হঠাৎ একটি মোটরসাইকেলে ছিনতাইকারীরা এসে তার হাতে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে টাকার ব্যাগটি নিয়ে যায়।

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্তে জানা যায়, রিপন দেবনাথ বিভিন্ন পাওনাদারদের ঋণ পরিশোধের কথা বললেও তা পরিশোধ না করতে পেরে ফয়সল মনসুর নামের এক ব্যক্তির পাওনা ৬ লাখ টাকা পরিশোধের দিন ২১ এপ্রিল ধার্য্য করেন। রিপন দেবনাথ পাওনাদার ফয়সল মনসুরকে বারবার টাকা ফেরৎ দেওয়ার বিষয়ে মোবাইলে যোগাযোগ করে আশ্বাস দিয়ে শহরে আসে।

এক পর্যায়ে টাকা সংগ্রহ না করে কসুমবাগ এলাকায় চার লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিনব পন্থা অনুসরণ করে এ মিথ্যা ছিনতাইয়ের ঘটনা সাজিয়ে নিজের হাত কেটে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন। মিথ্যা ঘটনা সাজানোর ওই অপরাধে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।