শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



কমলগঞ্জে সেতু আছে সড়ক নেই, ভোগান্তিতে ২০ গ্রামের মানুষ
নিউজ ডেস্ক

নিউজ ডেস্ক



বিজ্ঞাপন

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার লংগুর পাড় এলাকায় জিবতলী গ্রামে কয়েক লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত একটি সেতু প্রায় ১২ বছর ধরে জনসাধারণের কোনও কাজে আসছে না। সেতুটি সংস্কার না করায় প্রায় ২০ গ্রামের মানুষ আট কিলোমিটার ঘুরে যাতায়াত করতে বাধ্য হচ্ছে।


খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ৮নং মাধবপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের লংগুরপাড় সংলগ্ন জিবতলী খালের ওপর ২০০৮ সালে সেতুটি নির্মিত হয়। নির্মাণের দুই বছর পর সেতুর উইং ওয়াল ও এর পাশের মাটি বন্যায় ভেঙে গেলেও এ পর্যন্ত সংস্কার করা হয়নি। ফলে এ রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে আছে।

এতে ৮ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্ব দিকের আরেকটি রাস্তা হয়ে ২০ গ্রামের মানুষকে আসা যাওয়া করতে হচ্ছে। ফলে স্থানীয়দের পণ্য হাট বাজারে পৌঁছাতে গুণতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।

স্থানীয় খোকন মিয়া, রাজিব মালাকারসহ একাধিক লোকজন অভিযোগ করে বলেন, রাস্তার সামান্য জায়গা ভাঙা। সেতুর গোড়ায় মাটি ভরাট করে দিলেই আমদের অন্য রাস্তা ঘুরে যাওয়া লাগতো না। তারা আরও জানান, বিষয়টি লিখিতভাবে কয়েকবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানালেও কোনও লাভ হয়নি।

উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের স্থানীয় ইউপি সদস্য মোতাহির আলী জানান, কয়েকবার উপজেলা নির্বাহীকে ও উপজেলা প্রকৌশলীকে অবগত করেছি। কিন্তু কাজ হয়নি।


স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি) কমলগঞ্জ উপজেলার উপ-সহকারী প্রকৌশলী মামুন আহম্মদ জানান, সরেজমিন পরিদর্শন করেছি। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে জানানো হবে।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.আশেকুল হক বলেন, খোঁজ নিয়ে দ্রুত সমস্যা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট দফতরকে নির্দেশ দিয়েছি।