মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২ খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ



ভারতকে সুবিধা দিতে সূচি পরিবর্তন খেলার আগেই গ্রুপে দ্বিতীয় বাংলাদেশ
খেলাধুলা ডেস্ক

খেলাধুলা ডেস্ক



বিজ্ঞাপন

দুবাইয়ে আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। কিন্তু আফগানিস্তানকে হারালেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হতে পারছে না মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। কারণ প্রভাবশালী ভারতকে সুবিধা দিতে আগেই বাংলাদেশকে গ্রুপ রানার্সআপ হিসেবে গণ্য করে সূচি নির্ধারণ করে ফেলেছে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। আগের সূচিতেও ছিল ব্যাপক সমস্যা। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলে আবুধাবিতে গিয়ে চার দিনে তিন ম্যাচ খেলতে হতো বাংলাদেশের।

এখন আগের সব হিসাব বাদ। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন, রানার্সআপের কোনো হিসাব নেই। শেষ ম্যাচে যাই হোক সুপার ফোরের সূচি মঙ্গলবার রাতেই চূড়ান্ত করে ফেলেছে এসিসি। ভ্রমণ ক্লান্তির জন্য আবুধাবিতে খেলতে রাজি হচ্ছিল না ভারত।

এ নিয়ে কোনো রকম ছাড় দিতে রাজি নয় তারা। তাই বাধ্য হয়েই তাদের সুবিধা দিতে গ্রুপ পর্বের খেলা শেষ হওয়ার আগেই সূচি নির্ধারণ করে ফেলে এসিসি। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পরিবর্তিত সূচি প্রকাশ করেছে এশিয়ান ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। নতুন সূচিতে বাড়তি সুবিধা পেয়েছে ভারত। তাদের কোনো ম্যাচই নেই আবুধাবিতে। সবগুলো খেলা রাখা হয়েছে দুবাইতেই। তবে কিছু সুবিধা পেয়েছে বাংলাদেশও। নতুন সূচিতে বাংলাদেশের আবুধাবিতে যাওয়া একদিন কমছে। তবে বড় বেকায়দায় পড়েছে পাকিস্তান। আবুধাবিতে আফগানিস্তানের সঙ্গে খেলার পরই ছুটে যেতে হবে দুবাইয়ে। একদিন পরই দুবাইয়ে তারা মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের। দুই দিন পর আবার আবুধাবিতে ফিরে বাংলাদেশের সঙ্গে লড়বে তারা।

‘পাগলেও ভালো প্রতিক্রিয়া দেখাবে না’
গতকাল সকালে আইসিসি ক্রিকেট একাডেমি মাঠে অনুশীলন করতে এসে বাংলাদেশ দল জানতে পারে নতুন সূচির খবর। নতুন সূচিতে অর্থহীন হয়ে পড়েছে গ্রুপ পর্বে আফগানিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচ। এমন খবরে হতাশা জানান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাও। মাশরাফি বলেন, ‘সূচি বদল নিয়ে চিন্তা করার সুযোগই পাইনি। তবে অবশ্যই এটা হতাশার। প্রথম থেকেই আমাদের পরিকল্পনায় ছিল যে শ্রীলঙ্কাকে প্রথম ম্যাচে হারাতে পারলে হয়তো আমরা গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে এগিয়ে যাবো। এরপর গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হলে ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ দলের সঙ্গে প্রথম ম্যাচ খেলবো সুপার ফোরে। কিন্তু আজ (গতকাল) সকালে জানতে পারলাম, আমরা আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিতি আর হারি, আমরা ‘বি ২’ হয়ে গেছি। এটা অবশ্যই হতাশার। কিন্তু গ্রুপ ম্যাচ বলেন বা যাই বলেন, একটা নিয়ম থাকে টুর্নামেন্টের। সেই নিয়মের বাইরে চলে যাচ্ছি আমরা। এটাই হতাশার।’ সূচি প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন, ‘আমার মনে হয় না কেউ ভালো প্রতিক্রিয়া দেবে। এমনকি একজন পাগলও এটাকে ভালোভাবে নেবে না। আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে গ্রুপ স্টেজের আগের দিন শুনছেন যে আপনি গ্রুপে দ্বিতীয়। প্রকাশ না করলেও এই সিদ্ধান্তে প্রতিক্রিয়া ভালো হওয়ার কথা না।’ ক্ষুব্ধ মাশরাফি বলেন, জেদ বলতে দেখুন, আমরা পর পর ম্যাচ খেলছি কখন। মূল ম্যাচে এসে এই গরমে পর পর ম্যাচ খেলছি। যে ম্যাচের সবচেয়ে মূল্য (সুপার ফোরের ম্যাচ)। সেখানে আমরা পর পর ম্যাচ খেলছি। আমাদের তো ২৪ জন প্লেয়ার নেই যে একাদশ পুরো বদল করে নামাবো।
আবুধাবিতে আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে দিবারাত্রির ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। খেলা শেষে দুবাইয়ের হোটেলে ফিরতেই পেরিয়ে যাবে মাঝরাত। পরদিনই সুপার ফোরের ম্যাচে খেলতে হবে ভারতের বিপক্ষে। মাশরাফি বলেন, ধরেন কাল (আজ) যদি পরে ফিল্ডিং করি এবং এরপরের ম্যাচে প্রথমে ফিল্ডিং করি তাহলে আমাদের ১০ ঘণ্টাও রিকোভারির টাইম নেই। আর সোয়েটিং (ঘাম-গরম) রিকোভারি করতে ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টাও লাগে।

এশিয়া কাপের পরিবর্তিত সূচি
২১শে সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-ভারত, দুবাই
২১শে সেপ্টেম্বর পাকিস্তান-আফগানিস্তান, আবুধাবি
২৩শে সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-আফগানিস্তান, আবুধাবি
২৩শে সেপ্টেম্বর ভারত-পাকিস্তান, দুবাই
২৫শে সেপ্টেম্বর ভারত-আফগানিস্তান, দুবাই
২৬শে সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ-পাকিস্তান, আবুধাবি
২৮শে সেপ্টেম্বর ফাইনাল, দুবাই