বুধবার, ২০ জানুয়ারী ২০২১ খ্রীষ্টাব্দ | ৭ মাঘ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



জুড়ীতে সাপ খেলা দেখিয়ে স্বর্ণালংকার-টাকা নিয়ে পালালেন সাপুড়ে



বিজ্ঞাপন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :: সাপের খেলা দেখিয়ে অতি কৌশলে বাড়ির নারীদের কাছ থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়েছে দু‘জন সাপুড়ে।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) মৌলভীবাজার সীমান্ত জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের বিরইনতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সঞ্জয় চক্রবর্তী। তবে এ নিয়ে লিখিত অভিযোগ পাওয়াতে তদন্তের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।


পুলিশ ও স্থানীয় কয়েকজন জানিয়েছেন, অপরিচিত দু’জন সাপুড়ে সোমবার দুপুরের দিকে বিরইনতলা গ্রামের উস্তার আলীর বাড়িতে সাপের খেলা দেখাতে যান। সে সময় বাড়িতে কোনো পুরুষ লোক ছিল না। কাঠের বাক্সে করে একটি সাপ নিয়ে এ বাড়ির উঠোনে খেলা দেখাতে শুরু করে।

এ সময় বাড়ির ছেলে-মেয়ে ছাড়াও বাড়ির নারীরা সাপের খেলা দেখতে উঠানে জড়ো হয়। সাপের খেলা শেষে সাপুড়ে দু’জন বাড়ির নারীদের স্বর্ণালংকার ভেজানো পানিতে সাপকে গোসল করানোর কথা বলে। সেই সাথে নগদ পাঁচ হাজার টাকাও সঙ্গে আনতে বলেন।

সাপকে গোসল করানোর পর স্বর্ণালংকার ও টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার কথাও জানায় তারা। তবে যদি তারা এসব কাজ না করে এতে পরিবারের মারাত্মক ক্ষতি হবে বলে জানান সাপুড়ে। এ কথা শুনে সরল মনে বিশ্বাস করে বাড়ির বেশ কয়েকজন নারী প্রায় দশ ভরি ওজনের স্বর্ণ ও নগদ পাঁচ হাজার টাকা ঘর থেকে নিয়ে এসে সাপুড়ের হাতে তুলে দেয়।

সে সময় সাপুড়ে সাপকে স্বর্ণালংকারের পানি দিয়ে গোসল করাতে বিলম্ব করতে থাকে। সেই সাথে স্বর্ণালংকার ও টাকা পকেটে ঢুকিয়ে রাখে। এতে উপস্থিত সকলে সাপকে গোসলের জন্য চাপ দিলে তারা দু‘জন তাদের ওস্তাদ আসলেই এ কাজ শুরু করবে বলে জানায়। এবং বাড়ির উঠান থেকে বেরিয়ে আসে। এক পর্যায়ে তাদের আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।


এদিকে, উস্তার আলী বিকেলে বাড়িতে এসে বিষয়টি জেনে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মাহবুব আলমের পরামর্শে জুড়ী থানায় লিখিত অভিযোগ দেন।

এ বিষয়ে জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে সাপ খেলা দেখানো অবস্থায় উস্তার আলীর বাড়ির এক ছেলে এক সাপুড়ের ছবি মোবাইলে তুলে রাখে। কে এই সাপুড়ে তা খুঁজতে তদন্তে বেরিয়েছে পুলিশ।