শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



কমলগঞ্জে এসিল্যান্ডের ওপর হামলা, পুলিশসহ আহত ৪




জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় ‘আশ্রয়ণ-২’ প্রকল্পে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকে কেন্দ্র করে হামলার শিকার হয়েছেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাসরিন চৌধুরী। এ সময় পুলিশসহ আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

সোমবার (১৬ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের রাজকান্দি গ্রামে এই হামলা করা হয়।


দুপুরে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করার কথা ছিল মৌলভীবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদের। এর আগে এই ঘটনা ঘটে। শেষ পর্যন্ত পুলিশি পাহারায় সংক্ষিপ্ত পরিসরে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন সংসদ সদস্য আব্দুস শহীদ।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ‘দুর্যোগসহনীয় গৃহনির্মাণ’ প্রকল্পের আওতায় ২০টি ঘর নির্মাণের জন্য রাজকান্দি গ্রামে সরকারি খাসজমি নির্ধারণ করা হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন বলে কয়েকদিন ধরে সেখানে সাইনবোর্ড টানানো হয়। কিন্তু সকালে দখলদারদের কয়েকজন সাইনবোর্ড ভেঙে ফেলে দেয়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাসরিন চৌধুরী। তখন দখলদার কয়েকজনের সঙ্গে তার বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে তারা ইটপাটকেল ছুড়লে তার গাড়ির কাচ ভেঙে যায়। এসিল্যান্ড, পুলিশসহ চারজন আহত হন।

সহকারী কমিশনার ছাড়াও আহত হয়েছেন তার গাড়ির চালক হাসান মিয়া, নারী পুলিশ সদস্য সেলিনা আক্তার ও স্থানীয় জয়বান বেগম।

কমলগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান বলেন, হামলায় আহত নারী পুলিশ সদস্যকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার মাথায় ৯টি সেলাই দিতে হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশেকুল হক বলেন, সরকারি খাস জায়গায় ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে, কাউকে উচ্ছেদ করে নয়। সরকারি কাজে বাধা ও হামলা করার ঘটনায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হবে।

সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদ বলেন, ‘এটা দুঃখজনক ঘটনা। আমি নিজে ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠানে গিয়েছি। দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’