বুধবার, ৩ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



বড়লেখায় অকারণে ঘোরাফেরা ও দোকান খোলায় ১৮ জনকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক




মৌলভীবাজারের বড়লেখায় অকারণে হাটবাজারে ঘোরাফেরা ও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় ১৮ব্যক্তিকে মোট ৬ হাজার ১’শত টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।


মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) বড়লেখা পৌরসভা, অফিসবাজার ও শাহবাজপুর বাজারে এই অভিযান চালানো হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নেছার উদ্দিন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পৌরশহরের হাজীগঞ্জ বাজার এলাকায় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখা, অযথা মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহন নিয়ে ঘোরাফেরা ও কাগজপত্র সঠিক না পাওয়ায় ১৭ জনের অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। মোটরসাইকেলের কাগজপত্র না থাকায় অপর এক ব্যক্তিকে শাহবাজপুর বাজারে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। অপরদিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালে অফিসবাজার এলাকায় ফার্নিচারের দোকানের দুজন কর্মচারীকে জরিমানার বদলে খাদ্যসামগ্রী দিয়ে সহায়তা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

দুজন কর্মচারী ভ্রাম্যমাণ আদালতকে জানান, কোনো সহায়তা না পেয়ে পেটের দায়ে তাঁরা দোকানে কাজ করতে এসেছেন। কাজ করে বাড়িতে নিলে পরিবারের সদস্যদের খাবার জোটবে। এদিন দুপুর ১২টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলে।


মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নেছার উদ্দিন মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে মুঠোফোনে বলেন, ‘হাটবাজারে ঘোরাফেরা ও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলায় ১৮ জনকে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দুজন ফার্নিচারের কর্মচারীকে তাৎক্ষণিক খাদ্যসামগ্রী দিয়ে সহায়তা দেওয়া হয়।’