শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



Sex Cams

বড়লেখায় রাস্তায় বাঁশ-গাছ রেখে প্রতিবন্ধকতা, সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক




মৌলভীবাজারের বড়লেখায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই যেসব গ্রামের লোকজন রাস্তায় বাঁশ-গাছ ফেলে (লকডাউন) চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছেন, তা দ্রুত সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার উপজেলা প্রশাসন এই নির্দেশ দিয়েছে। একই সঙ্গে অকারণে বাইরে ঘোরাঘুরি না করতেও অনুরোধ জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম আল ইমরান উপজেলা প্রশাসনের ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাস দিয়ে এই তথ্য জানান। তিনি জানিয়েছেন, যেসব গ্রামের রাস্তায় বাঁশ-গাছ ফেলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছেন, তা আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যে সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। প্রশাসনিকভাবে কাউকে লকডাউনের নির্দেশ দেওয়া হয়নি। জরুরী প্রয়োজনে কোনো এলাকা লকডাউন করার প্রয়োজন হলে প্রশসানই তা করবে। বড়লেখায় এখনও এরকম প্রয়োজন পড়েনি। একই সঙ্গে তিনি অকারণে বাইরে ঘোরাঘুরি না করতেও অনুরোধ জানান।

সূত্র জানায়, বড়লেখায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে গত কয়েকদিন থেকে উপজেলার পাখিয়ালা, হিনাইনগর, উত্তর লঘাটি, ইটাউরী, দৌলতপুর, চান্দগ্রাম, তেলিগুল, ঘোলসা, রুকনপুর, পশ্চিম দক্ষিণভাগ, চিন্তাপুর গ্রামের বাসিন্দারা রাস্তার প্রবেশপথে বাঁশ-গাছ দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন। যদিও এক্ষেত্রে তাদের কেউই প্রশাসনের অনুমতি নেননি। এতে মানুষের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়েছে।

অভিযোগ ওঠেছে, যারা করোনা ভাইরাস ঠেকানোর উদ্দেশ্যে এসব গ্রাম লকডাউন করেছেন। তারা নিজেরাই তা মানছেন না। তাদের অনেকেই সামাজিক দূরত্ব না মেনে অবাধে ঘোরাঘুরি করছেন। এমনকি কোথাও কোথাও খোলধুলা করা হচ্ছে। আড্ডা দেওয়া হচ্ছে। কোথাও কোথাও জরুরী প্রয়োজনে রোগীদের গাড়ি চলাচলে বাধা দেওয়া হচ্ছে। রাস্তায় বাঁশ-গাছ ফেলে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সমালোচনার ঝড় ওঠে। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হলে তা দ্রুত সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।