বুধবার, ৩ জুন ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



বড়লেখায় ২২০০ পরিবারকে উপজেলা চেয়ারম্যান সোয়েবের খাদ্য সহায়তা

নিজস্ব প্রতিবেদক




মৌলভীবাজারের বড়লেখায় করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে বহু নিম্ন আয়ের মানুষ বেকার হয়ে পড়েছেন। পরিবারের সদস্যদের খাবার জোগাড় করার মতো আর্থিক সংগতি তাদের নেই।


সংকটের এই সময়ে ২২০০ অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ। তিনি তাঁর ব্যক্তিগত উদ্যোগে এবং কয়েকজন ব্যবসায়ীর আর্থিক সহযোগিতায় বিতরণ করেছেন খাদ্যসামগ্রী। সোমবার (৬ এপ্রিল) সকালে গাড়ি করে উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে খাদ্যসামগ্রীগুালো পৌঁছানো হয়।

এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ, পৌরসভার কাউন্সিলর জেহীন সিদ্দিকী, জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি সুমন আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর স্থানীয় লোকজন তালিকা ধরে গরিব ও নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে খাদ্যসামগ্রীগুলো পৌঁছে দেন। প্রত্যেক পরিবার পেয়েছে আতপ চাল, আলু, মসুর ডাল ও সয়াবিন তেল।

বড়লেখা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে নিত্যপণ্যের দোকান ছাড়া সবকিছু বন্ধ রয়েছে। এ অবস্থায় কাজ-কর্ম না থাকায় বিপাকে পড়েছেন গরিব ও নিম্ন আয়ের মানুষ। সরকার ও স্থানীয় সাংসদ এবং পরিবেশ মন্ত্রীর উদ্যোগে দশ ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়েছে। ব্যক্তিগত উদ্যোগেও অনেকে দিচ্ছেন। কিন্তু এরপরও অনেক মানুষ রয়েছেন যাদের খাদ্যসামগ্রী খুব জরুরী। তাই আমি ব্যক্তিগত অর্থে উদ্যোগ নেই। বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ীও বিত্তিবান এগিয়ে আসেন। প্রথম দফায় ২২০০ পরিবারে ১০ লাখ টাকার খাদ্যসামগ্রী পাঠিয়েছি।


প্রাথমিক পর্যায়ে আরো প্রায় ১০ হাজার মানুষের খাদ্যসামগ্রী দরকার। সরকারি ত্রাণ তৎপরতা বাড়ানোর জরুরি। এছাড়া সমাজের বিত্তবান ও দানশীল মানুষকে এগিয়ে আসার আহবান করছি।’