বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ৮ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



Sex Cams

যে তিন কারণে ম্যান সিটিতে যেতে পারেন মেসি

খেলাধুলা ডেস্ক




লিওনেল মেসির সঙ্গে বার্সেলোনা ক্রীড়া পরিচালক এরিক আবিদালের দ্বন্দ্ব এখন স্প্যানিশ ফুটবলের সবচেয়ে আলোচিত বিষয়। ইউরোপের সংবাদমাধ্যমে গুঞ্জন, এই দ্বন্দ্বের সুযোগ নিতে তৈরি ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটি। ২০২১ সালের শুরুতে লিওনেল মেসির সঙ্গে বার্সেলোনার চুক্তি শেষ। আর্জেন্টাইন মহাতারকার সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়ে কথা বলছে বার্সেলোনা।


কিন্তু ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার বরাবরই সেটা এড়িয়ে গেছেন। বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির সর্বশেষ চুক্তিতে উল্লেখ আছে, মেসি চাইলে যেকোনো মৌসুম শেষে ক্লাব ছাড়তে পারে। এজন্য সংশ্লিষ্ট ক্লাবকে মেসির বিনিময়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ দিতে হবে না বার্সেলোনাকে।

বার্সার সঙ্গে মেসির ঝামেলা কতটুকু গড়িয়েছে সে পর্যন্ত না ভেবে তাকে দলে ভেড়ানোর পরিকল্পনা করছে ক্লাবগুলো। আর এ দৌড়ে সবার চেয়ে এগিয়ে ম্যানচেস্টার সিটি।

জুলাইয়ের গ্রীষ্মকালীন দলবদলে লিওনেল মেসি বার্সেলোনা ছেড়ে ম্যান সিটিতে পাড়ি জমাতে পারেন। অন্য ক্লাব কেন নয়? এর কারণ খোঁজার চেষ্টা করেছে বৃটিশ দৈনিক ‘এক্সপ্রেস’। তারা মূলত তিনটি প্রধান কারণ উল্লেখ করেছে তাদের প্রতিবেদনে-

পেপ গার্দিওলা
লিওনেল মেসির ‘কিংবদন্তী’ হয়ে ওঠার শুরু যার অধীনে সেই পেপ গার্দিওলা প্রায় চার বছর ধরে রয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির দায়িত্বে। ২০১২ সালে গার্দিওলা বার্সেলোনা ছেড়ে গেলেও মেসির সঙ্গে তার দারুণ সম্পর্কটা আগের মতই রয়েছে। ২০০৮ থেকে ২০১২ পর্যন্ত এই চার বছরে বার্সেলোনাকে ১৪ শিরোপা জেতানো কোচ পেপ গার্দিওলার জন্য ম্যানসিটিকে বেছে নেয়ার ক্ষেত্রে আগ্রাধিকার দেবেন মেসি।


সার্জিও আগুয়েরো
২০০৫ সালে অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপ থেকে মেসি-আগুয়েরোর বন্ধুত্বের শুরু। সময়ের পরিক্রমায় তাদের বন্ধুত্বের সম্পর্কটা আরো গাঢ় হয়েছে। জাতীয় দলের টুর্নামেন্ট চলাকালীন দু’জনে একই রুমে থাকেন। মেসি-আগুয়েরোর সম্পর্কটার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে আর্জেন্টিনার সাবেক ফিটনেস কোচ ফার্নান্দো সাইনোরিনি একবার বলেছিলেন,‘তাদের সম্পর্কটা দুই ভাইয়ের মতো।’

চ্যাম্পিয়ন্স লীগ
সর্বশেষ চারবছর আগে ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের সেরা আসর চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা ঘরে তোলে বার্সেলোনা। ক্যারিয়ারের শেষ সময়ে নিশ্চয় আরো একটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিততে চাইবেন মেসি। পালাবদলের মধ্যে থাকা বার্সেলোনার সময়টা ভালো কাটছে না। ছন্দহীন বার্সেলোনাকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফেভারিটের তালিকা থেকেও অনেকে বাদ দিয়েছেন। অন্যদিকে ফেভারিটের তালিকায় উপরের দিকেই রয়েছে কখনো ইউরোপ সেরার ট্রফি না জেতা ম্যানচেস্টার সিটি। চলতি বছরের শেষে ৩৩তম জন্মদিনের কেক কাটবেন লিওনেল মেসি। ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে এসে ম্যানচেস্টার সিটির জার্সিতেই হয়তো আরো একটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ শিরোপা জিততে চাইবেন তিনি।