রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দ | ১২ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ



বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ পুতিনের

নিউজ ডেস্ক




মধ্যপ্রাচ্যের আঞ্চলিক সংঘাত বিশ্বযুদ্ধে পরিণত হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বুধবার মস্কোর পার্লামেন্টে দেওয়া বার্ষিক ভাষণে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার প্রয়োজন। এক্ষেত্রে মানবজাতির উন্নতির জন্য পারমাণবিক ক্ষমতাসম্পন্ন পাঁচ দেশ- যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের বিশেষ দায়িত্ব রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ বিমানবন্দরে ড্রোন হামলা চালিয়ে ইরানের শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র। পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে ইরাকের মার্কিন সেনা অবস্থানে গত ৮ জানুয়ারি হামলা চালায় তেহরান। সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ হিসেবে মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন অবস্থানে হামলা চালানোর ঘোষণা দিয়েছে ওই অঞ্চলের বিভিন্ন মিলিশিয়া গোষ্ঠী।

এমন প্রেক্ষাপটে বুধবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আঞ্চলিক সংঘাত দ্রুত আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠতে পারে। বিশ্বের শৃঙ্খলা রক্ষা, স্থিতিশীলতা ও নিরাপত্তার স্বার্থে ব্যাপক আলোচনা প্রয়োজন। যুদ্ধের কারণ নিরসনে পরমাণু অস্ত্রসমৃদ্ধ দেশগুলোকে কাজ করতে হবে।’

অত্যাধুনিক অস্ত্র থাকায় রাশিয়া বর্তমানে নিরাপদ রয়েছে জানিয়ে পুতিন বলেন, এই মুহূর্তে কোনও দেশ হুমকি তৈরি করতে না পারলেও রাশিয়াকে আরও উন্নত অস্ত্রের উন্নয়ন ঘটাতে হবে। আগ্রহী সব সহযোগীকে সহায়তার জন্য রাশিয়া প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, মস্কো কারও জন্য হুমকি নয়। তবে তার দেশ জাতীয় নিরাপত্তা উন্নয়ন অব্যাহত রাখবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ওই ভাষণে পুতিন প্রস্তাব দেন, প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে হলে ২৫ বছর রাশিয়ায় বাস করতে হবে। এছাড়া ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিদেশের নাগরিকত্ব লাভ বা আবাসিকতা অর্জন নিষিদ্ধ করারও প্রস্তাব দেন তিনি।