মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ




সিলেটে ভিসা অনুযায়ী কাজ না পাওয়ায় মারামারিতে যুবকের মৃত্যু, গ্রেফতার ৪

নিউজ ডেস্ক




কাতারে পাঠিয়ে ভিসা অনুযায়ী কাজ না পাওয়ায় দু’পক্ষের মারামারিতে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সিলেটের দক্ষিণ সুরমার নাজির বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার ভোরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত কামরুল ইসলাম সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানার ধোস্তপুর গ্রামের মো. বাবুল মিয়ার ছেলে। বর্তমানে তারা দক্ষিণ সুরমার নাজিরবাজার এলাকায় ভাড়াটে বাসায় বসবাস করছেন।


এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে মামলা করলে মঙ্গলবার সকালেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত বাবা-ছেলেসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতাররা হলেন- বিশ্বনাথ উপজেলার নাজিরবাজার ইউপির ধর্মদা গ্রামের সিকন্দর আলীর ছেলে ফজর আলী, তার ছেলে মো. আব্দুস সামাদ প্রকাশ আশরাফ, মো. সুয়েব মিয়া ও মো. লায়েক আহমদ।

দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি খায়রুল ফজল জানান, বাবুল মিয়ার শ্যালিকা ও তার স্বামীর মাধ্যমে ৪ থেকে ৫ মাস আগে ফজর আলীর মেজ ছেলে আল আমিনকে কাতার পাঠানো হয়। সেখানে তার কাজ ও ভিসা নিয়ে মনোমালিন্য দেখা দেয়। তার সূত্রধরে গত ১ ডিসেম্বর নাজির বাজারের জবান আলীর বাসায় দুপক্ষের মধ্যে মারামারি হয়। এতে কামরুল ইসলাম আহত হলে তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে কিছুটা সুস্থ হলে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। সোমবার মধ্য রাতে তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে তাকে ফের তাকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় এদিনই কামরুলের বাবা বাবুল মিয়া বাদি হয়ে দক্ষিণ সুরমা থানায় মামলা করেন। মামল করেন।


ওসি আরো জানান, মামলার প্রেক্ষিতে এসআই লোকমান হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ আসামিদের গ্রেফতার করেছে। পরে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

error: Content is protected !!